সর্বশেষ :
Thu, 21 Sep, 2017

 
হরতাল-অবরোধের জের লাটে উঠার পথে না’গঞ্জের ফার্নিচার মালিকরা
Monday, 26 January 2015 21:34

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট এনগঞ্জ ২৪ ডটকম: ধার দেনা করে দিনপার করছে নারায়নগঞ্জের ফার্নিচার ব্যবাসায়িরা। টানা অবরোধ আর হরতালের কারনে ফার্নিচার কেনাবেচা নেই বললেই চলে । অনেক মলিক দেনা করেই দিচ্ছে দোকান ভাড়া ও কর্মচারীর বেতন। মন্দার এই ধকল কবে কটিয়ে উঠবে তারও কোন সঠিক উত্তর জানা নেই তাদের। ফার্নিচার ব্যবসা নিয়ে বাড়ছে হতাশা।

নারায়নগঞ্জ শহরের একাধিক ফার্নিচার ব্যবসায়ির সাথে আলাপ কালে তারা জানিয়েছে, ফার্নিচার ব্যবসার পরিস্থিতি দিনদিন মন্দা। এভাবে চলতে থাকলে একসময় ব্যবসা বন্ধ হয়ে যাবে।

তারা জানান, সারাদেশের মতো নারায়নগঞ্জ শহরেও নাশকতার আতংকের কারনে ক্রেতারা আগের মত আর ফার্নিচার ক্রয় করতে আসছেনা।

ব্যবসয়িরা জানান, ফার্নিচার ক্রেতাদের আকৃষ্ট করার জন্য আমরা প্রতিনিয়তই নতুন অফার(ছাড়) দিয়ে থাকি। কিন্তু তাতেও আমরা কোন মালামাল বিক্রি করতে পারছিনা।

ফার্নিচারের দোকানগুলোতে সরেজমিনে দেখা যায়, অনেকটাই বেকার আর অলস সময় কাটাচ্ছে ফার্নিচার ব্যবসায়ী ও কর্মচারীরা। ক্রেতার দেখা মেলা দায়।

ফার্নিচার কোম্পানির কয়েকজন সেল্স ম্যানেজার জানান, ফার্নিচার বিক্রির একটি সময় থাকে যেসময় প্রতিনিয়তই সকলের বিক্রি ভালই চলে। ক্রেতারা মাল কিনেও স্বস্তিতে থাকেন আর আমরাও বিক্রি করে স্বস্তি পাই। কিন্তু বর্তমানের সাধারন সময়ের চাইতেও বিক্রি কমে গেছে। তারা জানান, অনির্দিষ্টকালের অবরোধ তাই ফার্নিচার বিক্রি নেই বললেই চলে। কারন ক্রেতারা ভয়ে বাসা থেকে বের হচ্ছেনা, বিগত কয়েক দিনে বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্টান বন্ধ হয়ে যাওয়াতে বেকার হচ্ছে কর্মচারীরা। ফার্নিচার ব্যবসায়িরা জানান,আমরা ভয়ে কারখানা থেকে মালামাল আনতে পারছিনা। অবরোধে যে হারে গাড়ি ভাংচুর ও আগুন জ্বালানো হচ্ছে তাতে আমাদের কাঠের তৈরী ফার্নিসারে আগুন কখন লাগানো হয় সে আতংকে থাকি।

ব্যবসায়িরা জানান, এমনিতেই কর্মচারীদের খরচ দিতে না পেরে মালিকরা ব্যবসা বন্ধ করে দেয়ার চিন্তা করছে। আর যদি কখনো ফার্নিচার ব্যবসায়ীদের এ পর্যায়ে যেতে হয় তবে এক সময় দেশ থেকে ফার্নিচার ব্যবসা উঠে যাবে। এ ভাবে চললে শুধু ফার্নিচার ব্যবসা নয় সকল ব্যবসা বন্ধ হয়ে যাবে।

তারা আরো বলেন, সকল ফার্নিচারের দাম আগের মত স্থিতিশিল থাকলেও ক্রেতার কোন দেখা মিলছেনা। দোকানের কর্মচারীরা বেকার হয়ে আছে। প্রতি মাসের নির্ধারিত একটি বাজেট করে রাখলেও হরতাল অবরোধের কারনে তা পূরন হচ্ছেনা। হরতালের ভয়ে প্রায় সময় দোকান বন্ধ রাখতে হচ্ছে এবং দেরিতে খুলে রাতে তাড়াতাড়ি বন্ধও করে দিতে হচ্ছে। আর মালিকরা বলছে আরো কয়েকদিন এভাবে চললে ফার্নিচার ব্যবসা বন্ধ করে দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এ ব্যপারে নারায়ণগঞ্জ ফার্নিচার মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক ও চাঁদপুর ফার্নিচারের মালিক সৈয়দ আহাম্মেদ জানান, সরকারী দল ও বিরোধী দলের ঝগড়ার কারনে সাধারন মানুষের ক্ষতি হচ্ছে। সকলের ফার্নিচার ব্যবসা খারাপ চলছে এবং ক্রেতা নেই বললেই চলে। ফলে আমাদের দোকান ও কারখানাতে কর্মরত শ্রমিকদের বেতন দিতে হিমসিম খেতে হচ্ছে। আমরা চাই বর্তমান রাজনৈতিক সমস্যার সমাধান রাজনৈতিক দলগুলোই করবে। রাজনিতিবিদরা যদি এর সমাধানের জন্য এখনই কোন ব্যবস্থা না নেয় তবে পরবর্তীতে সাধারন মানুষদেও আরো সমস্যার সম্মুক্ষিন হতে হবে।

 

এনগঞ্জ২৪ ডট কমে প্রকাশিত/প্রচারিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট অনুমতি সাপেক্ষে ব্যবহার করা যাবে।

সকল শিরোনাম
 
 

সম্পাদক : এস এম ইকবাল রুমি
বার্তা ও বাণিজ্যিক কাযার্লয় : ইয়াজ উদ্দিন ভবন (৪র্থ তলা), এ.সি ধর রোড, কালীর বাজার, নারায়ণগঞ্জ- ১৪০০।

নিউজ রুমঃ ০১৯৮১৬০৯২৫১, ০১৭৭৭৪১২৭৪৪ ই-মেইলঃ nganj24editor@gmail.com